Breaking News

Wednesday, 27 February 2019

মােবাইল সহ ধৃত পাঁচ উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী, বাতিল করা হল সমস্ত পরীক্ষা।


আর এ কমিটি ও পর্ষদের কড়া নির্দেশ দেওয়া সত্ত্বেও অবাধ্যতার নজির।এবারের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হওয়ার আগেই পর্ষদ স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছিল যে কোনো পরীক্ষার্থী যদি পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল নিয়ে আসলে বাতিল হতে পারে রেজিস্ট্রেশন। কিন্তুু এতো হুশিয়ারি সত্বেও  প্রথমদিনেই মােবাইল সহ ধরা পড়ল পাঁচ পরীক্ষার্থী। নিয়মের অবমাননা করার  ফলে বাতিল হয়ে গেল তাদের সমস্ত পরীক্ষা। আপাতত তাদের সমস্ত পরীক্ষা থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। আর রেজিষ্ট্রেশন বাতিলের ব্যাপারটি নিয়ে আলােচনা করবে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ । সংসদ সভাপতি মহুয়া দাস জানিয়েছেন , যে তারা ফোনে কী কী নথি নিয়ে এসেছিল , বা তারা এর সাহায্যে  কী করতে চেয়েছিল , তার সব রিপাের্ট আমাদের কমিটির কাছে জমা পড়বে ।কমিটি  আলােচনা করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে।

পাঁচ জন পড়ুয়ার মধ্যে একজন ছিল হাওড়ার আর বাকি চারজনই মালদা জেলার। সূত্রে জানা গিয়েছে , এদিন পরীক্ষা কেন্দ্রে এই পাঁচজন মােবাইল ব্যবহার করা মাত্রই তাদের ধরে ফেলেন শিক্ষকরা।সঙ্গে সঙ্গে এই ব্যাপারটি  সংসদকে জানানাে হয় । সেই মুহূর্তেই পাঁচজনের পরীক্ষা বাতিল করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সংসদ । সভাপতি জানিয়েছেন,তারা যদি সংসদের এই সিদ্ধান্তের পাল্টা আবেদনও করে , তাহলে তা গ্রাহ্য করা হবে না। প্রথমদিনের পরীক্ষা নির্বিঘ্নে কাটায় বেশ স্বস্তিতে সংসদ কর্তারা ।পাঁচজনকে মােবাইল সহ ধরার ব্যাপারে শিক্ষকদের  কৃতিত্ব দিতেও পিছ পা হননি মহুয়াদেবী ।তিনি বলেন , প্রধান শিক্ষক ও অন্যান্য শিক্ষকদের নজরদারির কাজে আমরা খুশি।

No comments:

Post a Comment